তোমাকে একটা কষ্টের ঘরে তালা দিয়ে রেখে দিব অনন্ত নক্ষত্রবীথি।সেই ঘরটা সাজানো থাকবে আমার ভুল বিশ্বাসের যন্ত্রণা থেকে বানানো নানারকম আসবাবপত্র দিয়ে ।একটা দীর্ঘশ্বাসের ব্যাথাকে ধারন করে চলতে থাকবে সে ঘরের এয়ার কন্ডিশনার যন্ত্রটি। যেন শীতলতার গভীরে স্থির হয়ে যাওয়ার কষ্ট চেপে বসে তোমার পাথুরে বুকের ভিতর।মিথ্যার রঙে রঙ করা থাকবে ঘরটার দেয়ালগুলো। তুমি তোমার বলা মিথ্যা গুলোকে চোখেচোখে রেখো তোমারই ছদ্মবেশী চোখে।মৃদুলয়ে বাজতে থাকবে ভাঙচুর হওয়া স্বপ্নগুলোর গান।খাবার হিসেবে থাকবে শুধু ঘৃণা আর অবহেলা। প্লেট ভর্তি অবহেলা আর গ্লাস
ভর্তি ঘৃণার কোন কমতি হবে না সেই ঘরে।আর হ্যা, সেই ঘরটার নাম হবে কি জানো? তোমার নামে নাম -“মায়াবতী “

%d bloggers like this: